হতাশা নিয়েই কোপা আমেরিকা শেষ করেছে দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। আর আগামী মাসে শুরু হবে লা লিগার নতুন মৌসুম। ১৭ আগস্ট অ্যাটলেটিকো বিলবাওর বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ২০১৯-২০ মৌসুম শুরু করবে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। তাই আপাতত ব্যস্তহীন সময় কাটাচ্ছেন বার্সা ফরোয়ার্ড লিওনেল মেসি। স্ত্রীকে নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বিভিন্ন নাইট ক্লাবে। আর নাইট ক্লাবে গিয়েই হামলার শিকার হয়েছেন সময়ের সেরা এই ফুটবল তারকা।

সেখানে ঘটলো অপ্রীতিকর এক ঘটনা। স্প্যানিশ গণমাধ্যমের খবর, বার্সেলোনা সুপারস্টার মেসিকে ওই নাইটক্লাবেই মারতে এসেছিলেন একজন। পরে নিরাপত্তারক্ষীদের প্রহরায় কোনোমতে ক্লাব থেকে বের করে আনা হয় আর্জেন্টাইন খুদেরাজকে।

মেসির উপর কে হামলা করেছিল কিংবা তার কি উদ্দেশ্য ছিল, সেটি পরিষ্কার নয়। তবে লোকটি অতিরিক্ত মদ্যপান করে মাতাল অবস্থায়ই এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।

৩২ বছর বয়সী এই ফুটবল তারকাকে নিরাপত্তা প্রহরায় ক্লাব থেকে বের করার ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ঘটনার সময় সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী অ্যান্তোনিলা রোকুজ্জোও।

ভিডিওর ক্যাপশনে লেখা হয়, ‘ইবিজার পার্টিতে একজন লোক মেসিকে মারতে এসেছিল। তবে মেসির কোনো ক্ষতি হয়নি। নিরাপদেই সিকিউরিটি গার্ডের সহযোগিতায় সে স্থান থেকে বের হয়ে আসতে পেরেছেন তিনি।’

 

এমএম//

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here