গতকাল  শুক্রবার যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এম পি রাজধানীর উত্তরায় হাবিবুল্লাহ মডেল স্কুল এন্ড কলেজে ডিএনসিসির সঙ্গে একযোগে ওয়ার্ড ভিত্তিক বাসা-বাড়ি ও প্রতিষ্ঠানে এডিস মশানিধন ও পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

এসময় তিনি বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৫৪ টি ওয়ার্ডের প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন যুব সংগঠনসমূহের কমপক্ষে ১০ জন সদস্য আজ থেকেই ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টি ও এডিস মশা নিধন কার্যক্রমে সরাসরি অংশগ্রহণ করবে।

পাশাপাশি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এডিস মশার বিরুদ্ধে কাজ করে যাওয়ার জন্য সকলকে একযোগে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

প্রতিমন্ত্রী দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, আমরা নিশ্চয়ই এডিস মুক্ত ঢাকা গড়তে পারি, দরকার শুধু সচেতনতা আর সামাজিক আন্দোলন। নিজ নিজ বাসা-বাড়ি অফিস, আদালত, এলাকা, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানসমূহে কোথাও ৩ দিনের বেশি পানি জমতে দেয়া যাবে না। পরিত্যক্ত বালতি কন্টেইনারে গুলো উল্টে দিতে হবে। সোমবার থেকে প্রতিটি ওয়ার্ডকে ১০ টি ভাগে ভাগ করে ৫৪ টি ওয়ার্ডে একযোগে কাজ শুরু হবে।

মন্ত্রী দেশের আন্দোলন সংগ্রামে যুব সমাজের অবিস্মরণীয় অবদানকে স্মরণ করে বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধসহ দেশের প্রতিটি ক্রান্তিলগ্নে আমাদের যুবসমাজ অগ্রনী ভূমিকা পালন করেছে। বর্তমান যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের অধীন প্রায় ৫ কোটি যুবক দেশের জন্য কাজ করতে প্রস্তুত। এই অধিদপ্তরের প্রায় ৬০০ যুবক আজ থেকে শুধু ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনেই কাজ করবে। পরবর্তীতে এটি ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনসহ সারা দেশেই এই মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি পালন করবে।

সবশেষে প্রতিদিন প্রতিটি ওয়ার্ডে ডিএনসিসির ওয়ার্ড কমিটি ও আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে স্কাউটস, সাধারণ ছাত্র-ছাত্রী, এলাকাবাসী এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের যুব সংগঠন সমূহকে তিনি একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান। সবাইকে একযোগে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে হাতে হাত রেখে এই এডিস মশা ও ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধে এগিয়ে আসার অনুরোধ করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

তিনি যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এই সময়োপযোগী পদক্ষেপের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এই মহতী উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই। আমি আশা করব, ভবিষ্যতে ও এ মন্ত্রণালয় আমাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে।

পরে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল ও মেয়র মো: আতিকুল ইসলাম একসঙ্গে কয়েকটি নার্সারি, দোকান, মার্কেট, মাঠ, ও নির্মানাধীন ভবন পরিদর্শন করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মো: জাফর উদ্দীন, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল হাই, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ফারুক আহমেদ, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব মো: আফছার উদ্দিন খান। -বিজ্ঞপ্তি।

-এসএমসা//

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here